• ঢাকা
  • শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
প্রকাশিত: অক্টোবর ২৪, ২০২০, ১০:২০ এএম
সর্বশেষ আপডেট : অক্টোবর ২৪, ২০২০, ১০:২২ এএম

‘আমি সুস্থ হয়ে উঠছি’ 

ক্রীড়া ডেস্ক
‘আমি সুস্থ হয়ে উঠছি’ 
কপিল দেব। ফাইল ফটো

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দিল্লির একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক কপিল দেবের অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি (এমন একটি প্রক্রিয়া যাতে ধমনীতে রক্ত সংবহন বন্ধ হয়ে গেলে তা কৃত্রিম পদ্ধতিতে মুক্ত করা হয়) করানোর পর এখন তিনি শঙ্কামুক্ত এবং সুস্থতার পথে রয়েছেন বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। 

হাসপাতালের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, কপিল দেব এখন আইসিইউতে আছেন। তাকে চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তার অবস্থা এখন স্থিতিশীল। কয়েক দিনের মধ্যেই তাকে ছেড়ে দেয়া হতে পারে।

পরে কপিলের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে বলা হয়, ‘আপনাদের ভালবাসা এবং উদ্বেগের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আপনাদের শুভেচ্ছাবার্তায় আমি আপ্লুত। আমি সুস্থ হয়ে উঠছি।’

কিংবদন্তি অলরাউন্ডারের অসুস্থতার খবর ছড়িয়ে পড়তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করে বার্তা দেন প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটাররা। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ বলা হয়, ‘আশা করছি কপিল দেব খুব দ্রুত সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাবেন। দেশবাসী তার সাহস এবং লড়াইয়ের কথা জানে।’

টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক বিরাট কোহলির বার্তা, ‘প্রার্থনা করছি আপনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন পাজি।’ লিটল মাস্টার শচীন টেন্ডুলকার টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘নিজের খেয়াল রাখুন। আপনার খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠার জন্য প্রার্থনা করছি পাজি।’ ক্যারিবীয়ান কিংবদন্তি স্যার ভিভ রিচার্ডস লিখেছেন, ‘বন্ধু তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে যাও। তুমি একজন চ্যাম্পিয়ন। আমরা প্রার্থনা করছি তোমার জন্য। জলদি দেখা হচ্ছে।’ কপিলের  প্রাক্তন সতীর্থ কীর্তি আজাদের টুইট, ‘খুব বড় মনের মানুষ এবং আমাদের অধিনায়ক কপিল দেব শেষ পর্যন্ত লড়াই করার মানসিকতা রাখে। ও দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছে। ওর পক্ষে কিছুই অসম্ভব নয়।’ বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিং বলেছেন, ‘প্রিয় পাজি, দয়া করে সুস্থ হয়ে উঠুন। ক্রিকেটের পরে আপনার কাছে গলফ শিখতে চাই।’ পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারতীয় ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ান এবং ব্যাডমিন্টন তারকা সাইনা নেহওয়ালও দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন। 

‘‌হরিয়ানা হারিকেন’ নামে বিখ্যাত কপিল দেবের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অধিনায়ক হিসেবে ১৯৮৩ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জয়। ওই আসরে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচ জেতানো ১৭৫ রানের ইনিংস এবং ফাইনালে নেয়া দুর্দান্ত ক্যাচের জন্য তিনি ক্রিকেট বোদ্ধাদের কাছে আজও আলোচনার খোরাক। 

ভারতের হয়ে ১৩১টি টেস্ট খেলা এই কিংবদন্তি করেছেন ৫ হাজার ২৪৮ রান, নিয়েছেন ৪৩৪টি উইকেট। তিনিই একমাত্র ক্রিকেটার যার টেস্টে চারশোর উপরে উইকেট এবং ৫ হাজার রান করার কৃতিত্ব রয়েছে। এছাড়া ২২৫টি ওয়ানডে খেলে ২৫৩টি উইকেট নেয়ার পাশাপাশি ৩ হাজার ৭৮৩ রান করেন। 

কপিল দেব ১৯৯৯ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত ভারতীয় দলের কোচের দায়িত্বও সামলেছেন। চলমান আইপিএলের ধারাভাষ্য প্যানেলে তিনি কাজ করছিলেন। গত শুক্রবার হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে দ্রুত দিল্লির ফোর্টিস হাসপাতালে নেয়া হয়।

এসইউ