• ঢাকা
  • রবিবার, ০১ আগস্ট, ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮
প্রকাশিত: জুন ২৩, ২০২১, ০৩:৪৪ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুন ২২, ২০২১, ০৯:৪৪ পিএম

দুরন্ত জয়ে নকআউটে ক্রোয়েশিয়া

দুরন্ত জয়ে নকআউটে ক্রোয়েশিয়া

গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের মিশনটা মোটেও ভালোভাবে শুরু হয়নি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হারের পর চেক প্রজাতন্তের বিপক্ষে ড্র করে নিজেদের পরের রাউন্ডে যাওয়ার গন্তব্যকে তারা কঠিন করে তুলেছিল। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে এসে তারা ফিরে পেল নিজেদের ছন্দ, একইসঙ্গে মিলিয়ে ফেলল নিজেদের পক্ষে সমীকরণ। স্কটল্যান্ডকে ৩-১ গোলে হারিয়ে ডি গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে তারা নকআউট পর্বে খেলা নিশ্চিত করেছে।  

মঙ্গলবার (২২ জুন) বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাতে গ্লাসগোতে অনুষ্ঠিত ম্যাচের ১৭ মিনিটে ইভান পেরিসিচের হেড পাসে পাওয়া বল বাঁ পায়ের দুরন্ত শটে লক্ষ্যভেদ করে ক্রোয়েশিয়াকে এগিয়ে দেন নিকোলা ভ্লাসিচ। পাঁচ মিনিট পর লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারেননি লুকা মদ্রিচ। 

২৪ মিনিটে স্কটল্যান্ডের জন ম্যাকগিনের বাঁ পায়ের শট প্রতিহত করেন ক্রোয়াট গোলরক্ষক ডমিনিক লিভাকোভিচ। তিন মিনিট পর স্কট ম্যাকটমিনের হেড রক্ষা করেন লিভাকোভিচ। খেলার ৩৮ মিনিটে জোসিপ জুরানোভিচের শট জালে না যাওয়ায় ব্যবধান বাড়েনি। দুই মিনিট পর লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন পেরিসিচ। 

৪২ মিনিটের মাথায় ডি বক্সের বাইরে থেকে কালাম ম্যাকগ্রেগরের তীব্র গতির শট জালে গেলে স্কটল্যান্ড সমতায় ফিরে প্রথমার্ধ শেষ করে। 

বিরতির পর আক্রমণের ধার বাড়িয়ে গোল আদায়ে মরিয়া হয়ে ওঠে। ৫০ মিনিটে জোসকোর শট স্কটিশ গোলরক্ষক ঠেকিয়ে দেন। ৫৫ মিনিটে জোসকোর শট আবারো গোলরক্ষকের বাধার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। 

চার মিনিট পর জন ম্যাকগিনের বাঁ পায়ের শট অল্পের জন্য জালের ভেতরে না ঢোকায় স্বাগতিকরা এগিয়ে যেতে পারেনি বরং তিন মিনিট পর মাতেও কোভাসিচের ব্যাক পাসে বল নিয়ে ডি বক্সের সামান্য সামনে থেকে বুলেট গতির চোখ ধাঁধানো এক গোল করে ক্রোয়েশিয়াকে আবারো লিড পাইয়ে দেন দলটির সেরা তারকা লুকা মদ্রিচ। 

৭৭ মিনিটে আবারো নায়কের ভূমিকায় মদ্রিচ। তার নেয়া মাপা কর্নার কিকে হেড নেন ইভান পেরিসিচ; বল বারে লেগে সরাসরি জালের ভেতরে জড়ালে কার্যত তখনই ক্রোয়েশিয়ার পরের রাউন্ডে যাওয়া নিশ্চিত হয়ে যায়। 

৩ ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া এবং চেক প্রজাতন্ত্র সমান ৪ পয়েন্ট পাওয়ার পাশাপাশি গোল পার্থক্যেও সমান থাকলেও বেশি গোল করার কারণে গ্রুপ রানার্সআপ হয়েছে ক্রোয়েশিয়া। চেক প্রজাতন্ত্রের ভাগ্য আপাতত ঝুলন্ত থাকছে। ছয় গ্রুপের তিন নম্বর অবস্থানে থাকা সেরা ৪ দলের মধ্যে তাদের থাকাটা মোটামুটি নিশ্চিত যেহেতু তারা ৪ পয়েন্ট পাওয়ার পাশাপাশি এক গোলের ব্যবধানে এগিয়ে আছে। ৭ পয়েন্ট পাওয়া ইংল্যান্ড ডি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরের রাউন্ডের টিকেট কেটেছে।