• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১, ০৮:২২ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১, ০২:২২ পিএম

সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন মালিঙ্গা

সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন মালিঙ্গা
লাসিথ মালিঙ্গা। ফাইল ফটো

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটে এক যুগের অবসান। বল মুঠোয় নিয়ে তাতে চুমু দিয়ে কোকড়ানো চুলে বাবরি দুলিয়ে দৌড়ে এসে ভয়ঙ্কর ইয়র্কারে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানকে তটস্থ করতে লাসিথ মালিঙ্গাকে আর দেখা যাবে না। ২২ গজে এক রঙিন অধ্যায়ের সমাপ্তি হলো। 

টি টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকেও অবসর নিলেন লঙ্কান এই মহাতারকা । এর আগে টেস্ট ও ওয়ান্ডে থেকেও আগেই অবসর নিয়েছিলেন মালিঙ্গা। গত বছর মার্চে শেষবার দেশের জার্সিতে আন্তর্জাতিক টি টোয়েন্টি ম্যাচে খেলেন মালিঙ্গা। তার অবসরের ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের এক গৌরবময় অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি ঘটল। 

নিজের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে অবসরের ঘোষণা দেওয়ার সময় এত বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে পাশে থাকা সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। টুইটারে মালিঙ্গা লেখেন, ‘আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির পাশাপাশি সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিলাম, এত বছর ধরে যারা আমাকে সমর্থন করে গেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।’

অবসর নিলেও তরুণ ক্রিকেটাররা সবসময়ই তাকে পাশে পাবেন। টুইটারে জানিয়েছেন তরুণ ক্রিকেটারদের পাশে তিনি সবসময়ই থাকবেন, ‘ ‘আমি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স, মেলবোর্ন স্টার্স, কেন্ট ক্রিকেট ক্লাব, রংপুর রাইডার্স, গায়ানা ওয়ারিয়র্স, মারাঠা ওয়ারিয়র্স ও মন্ট্রিল টাইগার্স ধন্যবাদ দেই। আমি এখন আমার অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করব তরুণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে যারা ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট ও জাতীয় দলে খেলতে চায়।’

ভিডিওর ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন ‘যদিও আমার জুতা বিশ্রাম নেবে তবে খেলার প্রতি আমার ভালোবাসা কখনোই বিশ্রাম নেবে না। আমাদের তরুণদের ইতিহাস তৈরি দেখতে মুখিয়ে আছি।’

২০১১ সালে টেস্ট, তারপর ২০১৯ সালে ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় জানান। এবার ২৯৫ ম্যাচে ৩৯০ উইকেট নেওয়ার পর টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকেও বিদায় বললেন শ্রীলঙ্কার এই পেসার। ক্রিকেটের ছোট ফরম্যাটে মালিঙ্গার পরিসংখ্যান অসাধারণ- ১৬.৬০ স্ট্রাইক রেট, ৭.০৭ ইকোনমি এবং গড় ১৯.৬৮। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১০০ উইকেট নেওয়া প্রথম বোলার তিনি, ৮৪ ম্যাচের ক্যারিয়ার শেষ করেছেন ১০৭ উইকেট নিয়ে। বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান (১০৬) তার থেকে হাতছোঁয়া দূরত্বে।

মালিঙ্গা ২০০৭ ক্রিকেট বিশ্বকাপ ও ২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপ, এবং ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ, ২০০৯ টি-২০ বিশ্বকাপ ও ও ২০১২ টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে শ্রীলঙ্কা দলে ছিলেন।  সর্বকালের অন্যতম সেরা টি-টোয়েন্টি বোলার মালিঙ্গা আইপিএল, বিগ ব্যাশ লিগ, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ও অন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে নিজ দলে দারুণ ভূমিকা রেখেছিলেন। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাইয়ের হয়ে চারবার শিরোপা হাতে নিয়েছেন তিনি।