• ঢাকা
  • বুধবার, ০৫ আগস্ট, ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭
প্রকাশিত: জুলাই ১৬, ২০২০, ১১:২৬ এএম
সর্বশেষ আপডেট : জুলাই ১৬, ২০২০, ১১:২৬ এএম

সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি

সিরাজগঞ্জ সংবাদদাতা
সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি
সংগৃহীত ছবি

উজানের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সিরাজগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। জেলা পয়েন্টে যমুনার পানি বৃদ্ধিও অব্যাহত রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) সকাল ৬টায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) হিসাব অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় পানি সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে ১৪ সেন্টিমিটার বেড়েছে। জেলা পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার ৮৮ সেন্টিমিটার এবং কাজিপুর পয়েন্টে বিপৎসীমার ১১৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছে।

যমুনার পানি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাজিপুর, শাহজাদপুর ও চৌহালী উপজেলার নদী তীরবর্তী অংশের কয়েকটি স্থানে ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। পাউবোর পওর বিভাগের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী একেএম রফিকুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি ১৪ সেন্টিমিটার বেড়েছে। দু’একদিনের মধ্যে স্থিতিশীলতায় চলে আসার পাশাপাশি ঈদের আগে যমুনায় তৃতীয় দফা পানি ফের বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আবদুর রহিম জানান, সদর, কাজিপুর, শাহজাদপুর, বেলকুচি, উল্লাপাড়া, চৌহালী ও শাহজাদপুর উপজেলার ২২৪টি গ্রামের এ পর্যন্ত ৪৭ হাজার ২১৭টি পরিবারের প্রায় সোয়া দুই লাখ লোক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জেলার ওইসব এলাকায় ১৪ হাজার ১৩ হেক্টর আবাদি কৃষিজমি প্লাবিত হয়েছে। চলমান বন্যায় ১৮৭টি ঘরবাড়ি এবং ৩৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আংশিক ও পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। জেলায় প্রায় দুই লাখ ৫৫ হাজার পরিবারের মধ্যে ভিজিএফ কার্যক্রম চলায় আপাতত আলাদা করে বন্যায় সাহায্য দেওয়া হচ্ছে না।

জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ বলেন, যে কোনও পরিস্থিতিতে জেলায় বন্যা মোকাবিলায় আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে।

কেএপি

আরও পড়ুন