• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর ক্ষণগণনা

মুজিববর্ষ
প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২০, ০৪:৫৮ পিএম
সর্বশেষ আপডেট : জানুয়ারি ১৯, ২০২০, ০৭:৩৩ পিএম

জয় নয়, নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করাই বিএনপির লক্ষ্য : কাদের

জাগরণ প্রতিবেদক
জয় নয়, নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করাই বিএনপির লক্ষ্য : কাদের
কথা বলছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের -ছবি : জাগরণ

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণ লোক দেখানো বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, জয় তাদের লক্ষ্য নয়। লক্ষ্য নির্বাচনকে বিতর্কিত করা। কখনও সরকার, কখনও কমিশন, কখনও ইভিএমকে বিতর্কিত করাই হচ্ছে বিএনপির কাজ।

রোববার (১৯ জানুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বাংলাদেশের চলমান প্রকল্প নিয়ে বৈঠক করেন ওবায়দুল কাদের।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বৈঠকের কথা জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সরকারের অগ্রাধিকার প্রকল্পগুলো নিয়ে একটি বৈঠক ছিল। সেখানে পদ্মা সেতু, বঙ্গবন্ধু টানেল, মাতারবাড়ী প্রকল্প, পায়রা বন্দর, রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এই মুহূর্তে এগুলোর কাজের গতি ভালো। পদ্মা সেতুর অগ্রগতি তো অবিশ্বাস্য। প্রতিমাসে তিনটি করে স্প্যান বসছে। আগামী বছরের জুলাই-আগস্টের মধ্যেই কাজ শেষ হবে বলেও জানান তিনি।

রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল বলেন, মিয়ানমারের সঙ্গে চীনের ব্যবসায়িক সম্পর্ক ভালো। চীন রাখাইন অঞ্চলে বৃহত্তর বন্দর গড়ে তুলতে চায়। এটা তাদের দেশের পলিসি। এতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে কোনও জটিলতার সৃষ্টি হবে না।

থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে তার সৌজন্য সাক্ষাতের বিষয় তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, থাইল্যান্ডের অর্থায়নে দুটি প্রকল্প চলমান রয়েছে। এর একটি এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, অন্যটি এমআরটি লেন সিক্স প্যাকেজ। থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতকে বলা হয়েছে, সব প্যাকেজের কাজ যেন একসঙ্গে শেষ হয়।

চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের চলমান প্রকল্পের ফান্ড নিয়ে তৈরি হওয়া জটিলতা কেটেছে কিনা— এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এ নিয়ে এখন আর কোনও ঝামেলা নেই। তাদের (চীনের) একটি দল আগামী সপ্তাহে বাংলাদেশে আসবে। যদি কোনও সমস্যা থেকেও থাকে, তা সমাধান হয়ে যাবে।

এমএএম/এসএমএম

আরও পড়ুন